আপনার বাড়িতে নিশ্চই এমনও অনেকে আছে যারা কেনাকাটা করতে খুবই ভালোবাসে৷ পথে চলতে চলতে কোথাও যদি একবার নজরে পরে যে সেখানে 50% off চলছে! বা by 1 get 1 পাওয়া যাচ্ছে তাহলে লক্ষ্য করবেন সেই সমস্ত মানুষদের আটকে রাখা শুধু ‘মুশলিকই নয় নামুমকিন’ হয়ে যায়! কিন্তু জানেন কী যে সমস্ত জিনিস বাজার থেকে সস্তায় পাওয়ার করণে আপনি কিনে নিয়ে এসে আপনার ঘর ভরাচ্ছেন তার বেশির ভাগটাই ‘চোর বাজার’থেকে আসে?

এখন আমি সন্ধান দেব দেশ-বিদেশের এমনই কিছু ‘চোর বাজারের’ যা সতর্ক রাখবে আপনাদের সঠিক জিনিস ও তার গুণমাণ নির্ধারণ করতে৷

ভারতের আছে

১৷ মটনস্ট্রীট, মুম্বই: বলা যায় যত চোর বাজার রয়েছে তাদের ‘পিতামহ’, প্রায় ১৫০ বছরের পুরানো এই বাজার ৷ এর আগে নাম ছিল ‘সোর বাজার’৷ কিন্তু ব্রিটিশদের উচ্চারনে নাম পাল্টে আজ হয়েছে চোর বাজার৷ যেকোনও পণ্যের নকল বা সেকেণ্ড হ্যান্ড পণ্য আপনি অনায়াসে পেয়ে যাবেন এই চোর বাজারে৷

২৷ চিকপেট মার্কেট, ব্যাঙ্গালুরু: এটি ব্যাঙ্গালুরুর একটি প্রাচীন পাইকারি বাজার৷ যেখানে আপনি খুবই সস্তায় পেতে পারেন আপনার পছন্দের সিল্কের শাড়ি, অ্যান্টিক পণ্য ও জুয়েলারি৷ যদি আপনি যদি একটু দর কষাকষিতে পটু হন তবে এটি আপনার জন্য আদর্শ জায়গা৷ কারণ ১০০ টাকাতেও পেয়ে যেতে পারেন অনেককিছুই৷ পরেরবার ব্যাঙ্গালুরু গেলে অবশ্যই এখানে যাবেন কিন্তু৷

৩৷ চাঁদনীচক, ওল্ড দিল্লি: যদি একবার আপনি চাঁদনীচকে যান তবে মনে হবে সমগ্র পৃথিবী আপনার চোখের সামনে এসে গিয়েছে৷ এখানে পেতে পারেন পৃথিবী বিখ্যাত ব্র্যান্ডেড সব প্রোডাক্ট অভাবনীয় কম দামে৷

৪৷ পুদুপেট মার্কেট, চেন্নাই: চেন্নাইয়ের এই বাজার হল অটোমোবাইল প্রিয় ব্যক্তিদের কাছে স্বর্গের থেকেও কিছু কম নয়। কারণ এখানে মিল যায় এমন অনেক প্রোডাক্ট যা অনায়াসে স্বাদপূরণ করতে পারে তাদের৷

৫৷ লেস পুসেস দে সন্ত, প্যারিস: ফ্রান্সের এই মার্কেচচি বহু পুরানো মার্কেটগুলির মধ্যে অন্যতম ৷ এক সময়ে সন্ত ওউইন এখানে বসবাস করতে শুরু করেছিলেন৷ পরে ধীরে ধীরে বহু ব্যক্তি চুরির পণ্য এখানে বিক্রি করতে থাকেন৷ পরে এটি বিশ্বের বড়ো চোর বাজারগুলির মধ্যে অন্যতম বাজার হয়ে ওঠে৷

৬৷ ক্যানভাস ক্রিকস থিভস মার্কেট, আমেরিকা: তবে অন্যান্য বাজারগুলির মতো আপনি এই বাজারটি কিন্তু আপনি সারা বছর পাবেন না৷ বছরে অক্টোবর থেকে মে মাস পর্যন্ত অ্যারিজোনার ডাউনটাউন ক্যানভাস ক্রিকে বসে এই চোর বাজার৷

৭৷ ফেইরা লা লাডরা, লিসবন: বাজারটির নামই স্থানীয় ভাষায় চোর বাজার৷ কিন্তু তা হলেও এর কদর কিন্তু কিছু কম নয়৷ শুধু ওখানকার বাসিন্দাদের কাছেই নয় টুরিস্টদের কাছেও অন্যতম আকর্ষণ৷

৮৷ কোলঙ্গ থম, ব্যাঙ্কক: মূলত রাতেই বিক্রিপাট্টা চলে এই বাজারে৷ সস্তায় জামা-কাপর ও ইলেক্ট্রনিকস পণ্যের জন্য ক্রেতাদের অন্যতম আকর্ষণ এটি৷

এটা পড়ার পর যেতেই পারেন এইসব বাজারে কেনাকাটা করতে তবে হ্যাঁ, বিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ হিসেবে আপনাদের বলব, এই জায়গা গুলির অবস্থা লোকাল ট্রেনের থেকেও খারাপ কিন্তু৷ এটা কিন্তু মাথায় রাখবেন৷৷

The post এখানে জিনিসপত্রের দাম খুবই সস্তা, পুজোয় শপিং করতে হলে বাজারটিতে একবার ঘুরে আসতেই পারেন appeared first on Moner Diary.


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *